প্রত্যয়ন

তুমি যেভাবে কথা বলো,

শুনে মনে হয়;  শিশিরের মুগ্ধতায় মাটিগন্ধী কীট হই ।

খুব চেনা শব্দগুলোও যেভাবে উচ্চারণ করো তুমি;

শুনে মনে হয়, তোমার মতো কেউ পারেনি কখনো !

আমার কুশলাদী, পরসমাচার প্রতিদিনই

কতো কতো জন জানতে চায়; কারোটিই তোমার মতো হয় না ।

সাবলীলভাবে, শুদ্ধভাবে, শিল্প ও স্বপ্নময় ভঙ্গিমায়

তুমি যেমনটি হাসো, কান্নার পর যেমন করে চোখ মুছো আড়ালে;

যেমন হাঁটো-

যেনো কুয়াশার কার্নিশ ধরে হেঁটে গেলো ভোরের সরোবর,

যেনো  শ্যাওলার ঘামে অপলক ভুরুর কাঁপন !

হাজার মানুষ রোজই তো লক্ষবার পার হয় শাহবাগ মোড়;

কিন্তু তোমার চলন দেখে, সবার ত্রুটিগুলো চোখে পড়ে ।

শুধু তোমার চলন-বলনেই  আমি মন্ত্রমুগ্ধ হই ।

চট করে- এই যে কতো ব্যঞ্জন রেঁধে ফেলো, কেউ পারে নাকি ?

তোমার সবকিছুই আগবাড়িয়ে আমার পরিশুদ্ধ মনে হয় ।

তুমি যেভাবেই বলো- যেমনটি চলো- মনে হয় শ্রেষ্ঠতম এটাই ।

প্রত্যয়ন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Scroll to top